কেন আমাদের শক্তি এবং দুর্বলতা জানা উচিত?

কেন আমাদের শক্তি এবং দুর্বলতা জানা উচিত

আমরা অনেকেই প্রশ্ন করে থাকি যে কেন আমাদের শক্তি এবং দুর্বলতা জানা উচিত? এই প্রশ্নের উত্তর নিয়েই আজকে আমরা এই পোস্টের মাধ্যমে বিস্তারিত জানার চেষ্টা করবো যে কেন আমাদের শক্তি এবং দুর্বলতা সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারনা রাখা উচিত।

ধরুন আপনি কোন কোন কাজে পারদর্শী এবং কোন কোন কাজে অপারদর্শী এই প্রশ্নটি আপনার মনে জেগেছে কি তাইনা? এসব প্রশ্নের উত্তর আমরা অনেকেই খোঁজার চেষ্টা করি এবং নিজেকে নিয়ে অনেক চিন্তার পরও হয়ত এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর ঠিকঠাক ভাবে তেমন একটা পাওয়া যায় না। এই প্রশ্নের উত্তর অনেকটাই নির্ভর করে অভিজ্ঞতার উপর।

আপনাকে সব সময় একটা কাজ মনযোগ সহকারে করতে হবে যেকোন কাজ শুরু করার আগে সবচেয়ে বেশি দরকার হয় নিজের শক্তি সামর্থ্য এবং দুর্বলতা সম্পর্কে ভাল ভাবে জেনে নেওয়া। কেননা এই সমস্ত বিষয় গুলোর উপর নির্ভর করে জীবনের সফলতা অর্জনে আপনার নিজের জন্য কোন দক্ষতার উন্নতি সাধন করতে হবে এবং কোন দক্ষতা কার্যকরভাবে ব্যবহার করে নিজের লক্ষ্যে পৌঁছানো যাবে সেটা আপনাকেই ঠিক করে নিতে হবে।

এখন আবার অনেকের মনে প্রশ্ন জাগতে পারে যে কীভাবে জানা যাবে নিজের শক্তি ও দুর্বলতার জায়গাগুলো সম্পর্কে বা সেগুলো কি কি? চলুন তাহলে দেরি না করে জেনে নেওয়া যাক কেন আমাদের শক্তি এবং দুর্বলতা জানা উচিত সেটি সম্পর্কে।

    কেন আমাদের শক্তি এবং দুর্বলতা জানা উচিত?

    এই পর্যায়ে আমরা কয়েকটি তালিকা তৈরী করে নিবো খুব সহজে বুঝার জন্য যে কেন আমাদের শক্তি ও দুর্বলতা জানা উচিত সে সম্পর্কে। চলুন তাহলে একটি তালিকা করে নেওয়া যাক নিজের শক্তি ও দুর্বলতা সম্পর্কে জানার জন্যে এবং কোথায় কোথায় সেগুলোর ইম্প্রুভ করতে হবে সেটি নিয়ে।
    1. কাজের একটি তালিকা করা
    2. নিজের চিন্তাকে বিবেচনা করা
    3. পরিচিত মানুষকে জিজ্ঞেস করা
    4. বিভিন্ন পরিস্থিতিকে বিবেচনা করা
    5. মনের ইচ্ছাগুলোকে বিবেচনা করা
    6. উন্নতি সাধন করতে হবে এমন ক্ষেত্রকে সনাক্ত করা
    7. যেই কাজে পটু এবং যেখানে উন্নতির প্রয়োজন তার একটি তালিকা তৈরি করা
    8. Perfection এর চিন্তা থেকে বেরিয়ে আসা

    কাজের একটি তালিকা করা

    আমরা সারাদিন যে কাজগুলো করি তার একটি তালিকা তৈরি করে রাখা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। ধরুন যেসমস্ত কাজে তুলনামূলক ভাবে বেশি অংশগ্রহন করা হয় তাঁর একটি তালিকা করে রাখতে হবে এবং যে কাজে আপনাদের অনেক বেশি আগ্রহ অন্তত সেগুলোর। কেননা এই সমস্ত কাজের মধ্যেই লুকিয়ে থাকে নিজেদের শক্তি এবং দুর্বলতা।

    যেসমস্ত কাজে আপনাদের অনেক বেশি আগ্রহ এবং ভাল করছেন সেখান থেকেই বুঝতে পারবেন আপনাদের শক্তি ও দুর্বলতা কতোটুকু। আর যেসব কাজে আপনাদের আগ্রহ অনেক বেশি রয়েছে  সেসব কাজের জন্য পরিশ্রম করতেও প্রস্তুত থাকতে হবে। সুতরাং, আপনাকে সবকিছু বিবেচনা করেই একটি তালিকা তৈরি করতে হবে।

    নিজের চিন্তাকে বিবেচনা করা

    সবার প্রথমে আপনাকে নিজেকে বুঝতে হবে কোন কাজটা আপনার বেশি ভাল লাগে এবং কোন কোন কাজের প্রতি আপনার আগ্রহ বেশি সেটার দিকে লক্ষ রাখতে হবে। যেসমস্ত কাজের প্রতি আপনার আগ্রহ বেশি রয়েছে সেটার দিকে ফোকাস করে নিজেকে এগিয়ে নিতে হবে।

    পরিচিত মানুষকে জিজ্ঞেস করা

    আমাদের আশে পাশে অনেকেই রয়েছেন আপনি চাইলে আপনার নিজের কাজের কথা তাদের সাথে শেয়ার করতে পারেন। এতে করে তারা আপনাকে নতুন নতুন আইডিয়া দিতে পারবে এবং অনেক কিছু জানতে পারবেন তাদের কাছে থেকে।

    বিভিন্ন পরিস্থিতিকে বিবেচনা করা

    আমরা বিভিন্ন পরিস্থিতে নিজেদেরকে বিভিন্ন ভাবে উপস্থাপন করে থাকি। আমাদের অনেক কাজের ক্ষেত্রেই নিজেদের পরিস্থিতি দেখেই বুঝা যায় যে নিজেদের শক্তি এবং দুর্বলতা সম্পর্কে। তাই যেকোন পরিস্থিতিতে আমাদের মাথা ঠান্ডা রেখে সেটাকে হ্যান্ডেল করার মতো সৃজনশীলতা রাখতে হবে।

    আমাদের নিজেদের সম্পর্কে নিজেকে জানতে হবে এবং সামর্থ্য সম্পর্কে অবগত থাকতে হবে। আর তাই তো অনেকেই জানতে চাই যে কেন আমাদের শক্তি ও দুর্বলতা জানা উচিত এই সম্পর্কে। আপনারা যারা এই ধরনের প্রশ্ন সম্পর্কে জানতে চান বা এই ধরনের পোস্ট গুলো খুজে থাকেন। আপনারা আমাদের এই ওয়েবসাইটটি রেগুলার ভিজিট করতে পারেন।

    একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

    0 মন্তব্যসমূহ